জিল্লুর রহমান মিন্টুর খুনিরা প্রকাশ্যে: ক্ষুব্ধ আ.লীগ নেতারা

ব্যুরো রিপোর্ট: যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও চৌগাছার সিংহঝুলি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়াম্যান জিল্লুর রহমান মিন্টু হত্যার বিচার শেষ হয়নি ছয় বছরেও। বৃহস্পতিবার হত্যবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের নেতারা। তারা বলছেলেন, মিন্টু হত্যা মামলার প্রধান আসামি ১১ মামলার পলাতক আসামি শামীম কবীর প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। প্রশাসনের সামনে চলাফেরা করলেও তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয় না। আর মিন্টু খুনের মদদদাতারা আজও ধরাছোঁয়ার বাইরে। অথচ চৌগাছার সবাই জানে মিন্টু খুনের নেপথ্যে কারা ছিল।
বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় চৌগাছা উপজেলা পরিষদ হল রুমে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আয়োজনে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জিল্লুর রহমান মিন্টুর ছোটভাই উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহবায়ক জিয়াউর রহমান রিন্টু।
আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম মিলন, বিশেষ অতিথি চৌগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি শাহাজান কবীর, জিল্লুর রহমান মিন্টুর চাচা বিশিষ্ট কলামিষ্ট অধ্যাপক মিজানুর রহমান মধু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফুলসারা ইউপি চেয়ারম্যান মেহেদী মাসুদ চৌধুরী, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ ড. মোস্তানিছুর রহমান, যশোর জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক আবু সেলিম রানা, যশোর জেলা যুবলীগের সহসভাপতি সৈয়দ মেহেদী হাসান, জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মঈনুদ্দিন মিঠু, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক নূর-ই আলম সিদ্দিকী মিলন, যশোর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহŸায়ক ফিরোজ খান, চৌগাছা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের আহব্বায়ক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান দেবাশীষ মিশ্র জয়, চৌগাছা পৌরসভার মেয়র নূর উদ্দিন আল মামুন হিমেল, যশোর সরকারি এমএম কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ইমরান হোসেন প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, জিল্লুর রহমান মিন্টু ছিলেন একজন সৎ ও যোগ্য রাজনীতিবিদ। তার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়েই প্রতিপক্ষ তাকে দিবালোকে হত্যা করে। খুনের মদতদাতাদেরও বিচারের আওতায় আনতে হবে। মিন্টু হত্যায় চৌগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান শীর্ষ এক নেতা ও সাবেক এক নেতার প্রত্যক্ষ মদদ আছে উল্লেখ করে, তাদেও বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়।
উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর চৌগাছার সিংহঝুলি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দায়িত্ব পালনকালে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন জিল্লুর রহমান মিন্টু। তিনি চৌগাছা উপজেলা পরিষদের প্রথম দুইবার নির্বাচিত চেয়ারম্যান আতিউর রহমানের ছেলে। বর্তমানে জিল্লুর রহমান মিন্টু হত্যা মামলাটি বিচারাধীন আছে। এরইমধ্যে মামলার এক আসামি পালাতক অবস্থায় মারা গেছে।