যবিপ্রবিতে একাযোগে ২৪টি বিভাগের পরীক্ষা শুরু

প্রতিবেদক, যবিপ্রবি: যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (যবিপ্রবি) প্রথমবারের মতো একাডেমিক ক্যালেন্ডার অনুযায়ী ২৪টি বিভাগে একযোগে পরীক্ষা শুরু হয়েছে। সেশনজট কমানোর উদ্যোগ হিসেবে ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ক্লাসসমূহও একাডেমিক ক্যালেন্ডার অনুসরণ করা হচ্ছে।
সোমবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে প্রথম শিফটে ১ম ও ৩য় বর্ষ এবং বেলা দেড়টার দিকে দ্বিতীয় শিফটে ২য় ও ৪র্থ বর্ষের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনের নবম তলায় কেন্দ্রীয় পরীক্ষা কেন্দ্র এবং মাইকেল মধুসূদন দত্ত একাডেমিক কাম লাইব্রেরি ভবনে ২৪টি বিভাগের একযোগে পরীক্ষাসমূহ শুরু হয়।
পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, ২৪টি বিভাগের ১ম, ২য়, ৩য় ও ৪র্থ বর্ষ দ্বিতীয় সেমিস্টার পরীক্ষা সমন্বিতভাবে আজ থেকে শুরু হয়ে আগামী ৩০ নভেম্বর ২০১৯ খ্রি. তারিখ পর্যন্ত চলবে। কেন্দ্রীয়ভাবে একসাথে এবং বড় হলরুমে পরীক্ষা হওয়াতে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ করতেও সুবিধা হচ্ছে এবং নকলমুক্ত পরিবেশে পরীক্ষা নিশ্চিত করা যাচ্ছে।
এদিকে পরীক্ষার পরিবেশ ও সার্বিক বিষয় দেখতে আজ সকাল পৌনে ১১টার দিকে পরীক্ষার হল পরিদর্শনে যান বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন ও অন্যরা। এ সময় তিনি বলেন, একাডেমিক ক্যালেন্ডার বাস্তবায়ন হওয়ার ফলে সঠিক সময়ে ফলাফল প্রকাশ ও পরীক্ষা না হওয়ার যে অভিযোগ ছিল, সেটা আর নেই। একজন শিক্ষার্থী চার বছরের শিক্ষাজীবন চার বছরেই শেষ করতে পারবে।
পরীক্ষার হল পরিদর্শনের সময় পরীক্ষা অনুষ্ঠানের সামগ্রিক ব্যবস্থা, পরীক্ষার হলের পরিবেশ এবং ইনভিজিলেশন দেখে সন্তোষ উপাচার্য সন্তোষ প্রকাশ করে অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, সকলের সহযোগিতায় একাডেমিক ক্যালেন্ডার অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস ও পরীক্ষা পরিচালিত হচ্ছে। ফলে গত বছর থেকেই বিশ^বিদ্যালয়ে আর সেশনজট নেই। একাডেমিক ক্যালেন্ডার সুন্দরভারে বাস্তবায়নের জন্য বিশ^বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারী, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের দপ্তর এবং পরীক্ষার সঙ্গে যুক্ত সবাইকে ধন্যবাদ জানান তিনি।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ^বিদ্যালয়ের রিজেন্ট বোর্ডের সদস্য অধ্যাপক ড. বিপ্লব কুমার বিশ্বাস, স্বাস্থ্য বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. মোঃ জাফিরুল ইসলাম, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মোঃ আহসান হাবীব, ফিশারিজ অ্যান্ড মেরিন বায়োসায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. মোঃ আমিনুর রহমান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোঃ আব্দুর রশীদ, উপাচার্যের একান্ত সচিব মোঃ মাসুম বিল্লাল প্রমুখ।