নতুন উদ্যোক্তারাই আইসিটিতে বিপ্লব ঘটাবে: প্রতিমন্ত্রী স্বপন

ব্যুরো রিপোর্ট: পল্লী ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য বলেছেন, দেশের নতুন উদ্যোক্তারাই আইসিটিতে বিপ্লব ঘটাবে। চাকরি খোঁজার চেয়ে চাকরি দেয়ার প্রত্যয় নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে অধিকাংশ সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। তাই তিনি দেশের অর্থনীতিকে শক্তিশালী করতে এসব উদ্যোগী পরিশ্রমী উদ্যোক্তাদের ভয় না পেয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার আহবান জানান । তাহলেই বাংলাদেশ পৌঁছে যাবে উন্নয়নের র্শীষে। শনিবার বিকেলে শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক ইনভেস্টরস এসোসিয়েশনের উদ্যোগে আয়োজিত নব-নির্বাচিত কমিটির অভিষেক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
সমগ্র আয়োজনে সভাপতিত্ব করেন শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক ইনভেস্টরস এসোসিয়েশনের সভাপতি আহসান কবীর।
শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের ক্যাফেটেরিয়া মিলনায়তনে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য তার বক্তৃতায় আরও বলেন, তিনি যশোরের এমপি বা প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক সুবিধা অসুবিধা দেখার দায়িত্ব বা দায়বদ্ধতা রয়েছে। এ কারণে তিনি এ প্রতিষ্ঠানে অবস্থানরত সকল উদ্যোক্তাদের সমস্যা সমাধানে কাজ করবেন বলে আশ্বাস দেন।
এ আয়োজনে বিশেষ অতিথি ছিলেন যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ডক্টর মোঃ আনোয়ার হোসেন। এ সময় তিনি বলেন, দেশে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করতে হলে অবশ্যই প্রযুক্তি নির্ভর হতে হবে। এই জন্যে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরি করা নয়, চাকরি দেয়ার প্রত্যয়ে শিক্ষার্থীরা লেখা পড়া করছে। তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে যে মানবসম্পদ তৈরি তার অধিকাংশ চলে যায় দেশের বাইরে। এ কারণে দেশের চাহিদা অনুয়ায়ী লোকবল পাওয়া যায় না।
আরও বক্তৃতা করেন শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক ইনভেস্টরস এসোসিয়েশনের সহসভাপতি মুনছুর আলী, সাধারণ সম্পাদক মহিদুল ইসলাম, নির্বাহী সদস্য আনিকা হাসান।
এ সময় নেতৃবৃন্দ শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের নানান ধরনের সুযোগ-সুবিধার কথা উল্লেখ করেন। বিশেষ করে বাংলাদেশের প্রথম ও বৃহৎ সফটওয়্যার পার্ক হিসেবে এখনও পর্যন্ত ভূমিকা রেখে চলেছে শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক। তাই এখানকার বিদ্যুৎ বিল, স্পেস ভাড়া কমানো, সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে ক্লায়েন্ট সৃষ্টিতে সরকারিভাবে নানান প্রচার-প্রচারণা ও প্রণোদনা দেয়ার আহবানও জানান তারা।
পরে ইনভেস্টরস এসোসিয়েশনের সদস্যদের মাঝে ক্রেস্ট বিতরণ করা হয়। একই সাথে প্রতিমন্ত্রী ও উপাচার্যকে স্মারক উপহার দেয়া হয়।
অভিষেক অনুষ্ঠান শেষে পল্লী ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য এবং যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ডক্টর মোঃ আনোয়ার হোসেনের সাথে আরও একটি গোল টেবিল বৈঠক করেন উদ্যোক্তারা। পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
সমগ্র আয়োজনে সঞ্চালকের দায়িত্বে ছিলেন শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক ইনভেস্টর এসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক ইঞ্জিঃ শাহজালাল।