যশোরে হোম কোয়ারেন্টাইনে ১৬৬৭ জন: মুক্ত ৯৯জন

ব্যুরো রিপোর্ট: করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে যশোরে বিদেশফেরত প্রায় সাড়ে ২৩ হাজার জনকে খুঁজছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ, প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধিরা।  জেলায় বুধবার পর্যন্ত  হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন এক হাজার ৬৬৭ জন। তাদের মধ্যে ৯৯ জন ইতিমধ্যে সংক্রমণের ঝুঁকির সময় পার হওয়ায় মুক্তভাবে চলাফেরার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।
একমাসে যশোরে প্রায় সাড়ে ২৩ হাজার জন প্রবাসী বিভিন্ন দেশ থেকে যশোরে ফিরেছেন। এদের মধ্যে মাত্র ১ হাজার ৫৬৮ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। বাকিদের অবস্থানের তথ্য প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের কাছে নেই। তবে তাদের অবস্থান শনাক্ত করতে যশোরের আট উপজেলায় বিদেশ ফেরতদের তালিকা পাঠানো হয়েছে। এছাড়া জেলার সব ইউপি সদস্যদেরকে প্রধান করে একটি করে কমিটি গঠন করা হয়েছে। তারা ও প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের খুঁজে বের করা হচ্ছে।
বুধবার রাতে যশোরের সিভিল সার্জন শেখ আবু শাহীন জানান, যশোর জেলায় বুধবার আরো ২৭৮ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। মঙ্গলবারে কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন এক হাজার ২৯০ জন। তা বেড়ে দাড়িয়েছে এক হাজার ৬৬৭ জনে। তাদের মধ্যে ৯৯ জন ইতিমধ্যে সংক্রমণের ঝুঁকির সময় পার হওয়ায় মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। যারা হোম কোয়ারেন্টাইনে না থেকে নির্দেশ অমান্য করবে তাদের ব্যাপারে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। প্রতিটি উপজেলায় উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে নির্দেশ অমান্যকারীদের জেল-জরিমানা করবে।