সাংবাদিক ফখরে আলমের মৃত্যুতে বিভিন্ন মহলের শোক

ব্যুরো রিপোর্ট: যশোরের প্রথিতযশা সাংবাদিক দৈনিক কালের কণ্ঠ’র বিশেষ প্রতিনিধি কবি ফখরে আলমের (৬০) মৃত্যুতে শোক সন্তপ্ত পরিবারের গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছে বিভিন্ন মহল। বৃহস্পতিবার পৃথক শোকবার্তায় মরহুমের বিদ্রেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানানো হয়।
শোক প্রকাশ করেছেন, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন, যশোরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ, যশোর-২ (ঝিকরগাছা- চৌগাছা) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাড. মনিরুল ইসলাম মনির,  প্রেসক্লাব যশোরে সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, সম্পাদক আহসান কবীর, যশোর সাংবাদিক ইউনিয়ন (জেইউজে) সভাপতি সাজেদ রহমান, সহ সভাপতি প্রণব দাস, সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান মিলন, যুগ্ম সম্পাদক রেজাউল করিম রুবেল, কোষাধ্যক্ষ মারুফ কবীর এবং জেইউজে নির্বাহী সদস্য শফিক সায়ীদ ও জিয়াউল হক, বিএফইউজে-বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন’র সহ সভাপতি মনোতোষ বসু, যুগ্ম মহাসচিব সাকিরুল কবীর রিটন, নির্বাহী সদস্য নূর ইমাম বাবুল ও গোপীনাথ দাস, সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সভাপতি শহিদ জয়, সহসভাপতি মুর্শিদুল আজিম হিরু, সাধারণ সম্পাদক আকরামুজ্জামান, যুগ্ম সম্পাদক এসএম ফরহাদ, দপ্তর সম্পাদক ইকতিয়ার রহমান ইমন, কোষাধ্যক্ষ গালিব হাসান পিল্টু, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মীর কামরুজ্জামান মনি ও সদস্য সাইফুর রহমান সাইফ, যশোর সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বিপুল,  কলামিস্ট আমিরুল ইসলাম রন্টু প্রমুখ।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে মারা যান ফখরে আলম। আট বছর ধরে তিনি বøাড ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি মা রওশন আরা বেগম, স্ত্রী নাসিমা আলম, কন্যা নাজিফা আলম মাটি ও পুত্র ফাহমিদ হুদা বিজয়সহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু বান্ধব ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
বৃহস্পতিবার বাদ আসর যশোর জিলা স্কুল মাঠে তার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর গ্রামের বাড়ি শহরতলীর চাঁচড়ায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ২য় নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।